6 Responses

  1. Abu Sulaiman
    Abu Sulaiman at |

    এই লিখায় লেখকের মন্তব্যের পক্ষে বা বিপক্ষে মতামত চাই।

    Reply
  2. Fatema Mahfuz
    Fatema Mahfuz at |

    আপনি কোন মসজিদে এমন বেইজমেন্টে মহিলাদের নামাজের ব্যবস্থা দেখেছেন- তা উল্লেখ করেন নি।
    তাছাড়া অনেক মসজিদ মহিলাদের আলাদা ব্যবস্থা আছে, তবে হ্যা, এটা খুব খারাপ নিয়ম আমাদের দেশে যে, ঈমাম সাহেবের সাথে দেখা করতে হলে বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা লাগবে, আর দেখা করার ব্যপারটাও সহজ না।
    এদিকে বলেছেন- //আমি বলি পিছনের রুমে বা বেইসমেন্টে স্পিকারে শুনে নামাজ পড়ার চেয়ে আমার ঘরই উত্তম। ওখানে আমি আমার পছন্দের জায়গায় দাড়াতে পারি। আর আমাকে বন্দি করার পেছনে পুরুষদের লজিক হল তাদের মনে শয়তান ঢুকে পরবে, ইমান নষ্ট হবে, লোভ লালসা তৈরি হবে। এই সবতো পুরুষদের সমস্যা তারা ইমান মজবুত করুক শয়তান বিতাড়িত করুক আর যদি না পারে চোখ বেধে নামাজ পরুক// । আপনি কি পুরুষের সাথে এক রুমে নামাজ পরার পক্ষে?

    Reply
  3. এম এন হাসান
    এম এন হাসান at |

    রেলিবেন্ট হবে একটা পোস্ট, এই ভিডিওতে মসজিদে মেয়েদের নামাজ নিয়ে কিছু কথা বলেছেন শায়খ আকরাম নদভী।
    http://imbdblog.com/?p=2315

    Reply
  4. শাকিল মামুন
    শাকিল মামুন at |

    আমার কাছে মনে, মেয়েদের প্রতি ইসলামিস্টদের অসংখ্য বৈষম্যের কারণেই এ প্রশ্নটা উঠেছে। এটা দীর্ঘদিন ধরে জমতে থাকা ক্ষোভের পাহাড়ের একটা আইসবার্গ মাত্র।

    Reply
  5. শাহ আলম বাদশা

    এটা কাঠমোল্লাদের নিজের বানানো আইন-নবী সাঃ ঈদের মাঠেও মেয়েদের নিয়ে নামাজ পড়েছেন–আর এরা এটাকে নিষিদ্ধ করে বিদাতের জন্ম দিয়েছেন।

    আমার মেয়েদের আমি নামাজে নিয়ে যাই-কিশোর বয়স পরযন্ত নিতাম, পরে মেয়েরাই আর যেতে চায়না বড় হয়েছে এবং কেউ কিছু বলবে এই ভয়ে?

    আল্লাহ-নবীর আইন যারা চেঞ্জ করে তারা কি মুসলিম হতে পারে??

    Reply
  6. হোসাইন
    হোসাইন at |

    মসজিদে নারি পুরুষ উভয়ের যাওয়ার অধিকার রয়েছে ।

    Reply

Leave a Reply