10 Responses

  1. আহমদ মুসা
    আহমদ মুসা at |

    আজ ইশরাক চলে গেছে …। তাকে ধরে রাখার শক্তি-সামর্থ কোনটাই আমার নাই, আর যারা চলে যেতে চায়, তাদের ধরে রাখা যায়না ! তবে যেতে যেতে সে যা আমাদের বুঝিয়ে গেল, তা হলো :
    এক্ট্রা অর্ডিনারিদের হেন্ডেল করতে আমরা এখনো শিখিনি । কখনো শিখবো কিনা জানিও না । হয়তো শিখবো ও না। বাংলায় খুব প্রচলিত একটি প্রবাদ আছে “ যে জাতি জ্ঞানীদের মুল্যায়ন করতে জানেনা, সেখানে কখনো জ্ঞানীর জন্ম হয়না”।

    একটি পুঁচকে ছেলের জন্য এত বড় ওজনের একটি কথার ব্যাবহার করলাম বলে হয়তো এতক্ষনে অনেকে মুখ বাঁকিয়ে ফেলেছেন ? তবে এই ইশরাক তো শুধু এক ইশরাকই নয়, গত চৌদ্দ বছরে এমন অনেক ইশরাককেই আমার দেখা হয়েছে ! ওদের আমি বলি “ছড়ে পরা তারা”!
    কত সম্ভাবনার হাতছানি নিয়ে ওরা এসেছিলো আমাদের মিছিলে, কিন্তু হিপোক্রেটদের ভীরে আপনাতেই বড় নিরবে ঝরেগেছে সে সদ্য ফোঁটা গোলাপ গুলো ! যারা নিরবে সয়ে যায়, রোদ-বৃষ্টি যাদের ওপর কোন প্রভাব ফেলেনা, যারা চোখ বন্ধ রাখতে পারে-মুখ বুজতে পারে, এখানে তারাই টিকে থাকে।
    মূলত মাঝারি মানের মানুষদের পক্ষেই মোটামুটি এখানে টিকে থাকা সম্ভব। যারা একটু তত্বতালাশ করে চলতে চায়, উকিঝুকি মাড়তে চায় ….তো তারা গেছে, এভাবেই ভাবা হয়ে এখানে। একটা সময় শুনতাম এটি মেধাবীদের ঠিকানা ; কিন্তু আজ খবর নিয়ে দেখেন তেমন ক’জন আছে ? ( শুধু মাত্র জিপিএ প্রাপ্তদের আমি মেধাবী মানতে রাজি নই ) এরপর ভাবতাম মেধাবীরা আসে না কেন ?
    আপনারাই বলুন কেন আসবে মেধাবীরা ? এখানে কেমন সূযোগ আছে তাদের জন্য ? বছর বছর ধরে এমন এক অদ্ভুদ মেকানিজমে সংগঠন চলছে, যেখানে প্রকৃত মেধাবীদের কোন ঠাই নেই, ওরা আপনাতেই ঝরে যায়। অনেক ভাবে বিষটা বুঝার-বোঝাবার চেষ্টা করেছি। কিন্তু কে শোনে কার কথা ! ওই যে অটোমেকানিজম !

    এই যে ওরা হারিয়ে যাচ্ছে, আদতে আমাদের মাঝে এর কোন প্রতিকৃয়া কি হচ্ছে ? হচ্ছে না ! যেই ছিলাম, সেই থাকবো … চলতে থাকবে গড্ডালিকা প্রবাহ …. একবারও কি বুঝবো না – খুঁজবো না “ওদের চলে যাওয়ার পেছনে আমরা কতটা দায়ী ??? আমি মনে করি অনেক হয়েছে আর না ! এবার বোঝার সময় হয়েছে। মূলত ছাত্র শিবির তার অভ্যন্তর থেকে যে সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছে,তা শুধু মাত্রই “ছাত্র সংগঠনের অতিরক্ত রাজনৈতিক সংস্লিষ্টতার জন্য”। “কোয়ালিটির চাইতে কোয়ন্টিটিকে প্রাধান্য দেওয়ার জন্য”। “ইসলামের বুনিয়াদি বিষয় গুলো প্রেকটিসে পিছিয়ে পড়ার কারণে”।

    এবার তাদের একটু পড়ার সুযোগ দিন …..মুক্ত ভাবে চিন্তার সুযোগ দিন……..একটু খেলার সুযোগ দিন…..সুযোগ দিন জীবনটাকে উপভোগের। ইসলাম মানে জীবন থেকে বেড়িয়ে অদ্ভুদ জীবন নয়। ইসলাম মানে জীবনের সব দিক গুলো বজায় রেখে বাঁচা ।

    Reply
  2. ABUSAIF
    ABUSAIF at |

    আসসালাম…
    @আহমদ মুসা, আপনার দীর্ঘমন্তব্যে অনেক কথাই এসে গেছে!
    তবে “সবচেয়ে কম মন্দ” বিবেচনাতেই জামায়াত-শিবির এখনো অগ্রগামী- এটা বলা যেতে পারে! আরো দু-তিনটে সংগঠন মান বিবেচনায় খুব কাছাকাছি অবস্থানে আছে!

    ফুল যত সুন্দরই হোক- বৃন্তচ্যূত হলে আর ব্যবহারযোগ্য থাকেনা, যদি মালার গাঁথুনিতে ঠাঁই না পায়!

    জামায়াত-শিবিরের দায়িত্বশীলদের বাস্তব আমল ও বিশ্বাসের বৈপরীত্য এবং দায়িত্বজ্ঞানের সীমাবদ্ধতার বিপরীতে অতিমেধাবীদের বৃন্তচ্যূতি কোনটাই সমর্থনযোগ্য নয়!

    অতিমেধাবীরা অনেকেই ক্যারিয়ার গঠনে সফল হলেও তাঁদের মেধার ফসল ইসলামের কল্যানে প্রয়োগে অধিকাংশই সফল হতে পারেননি! এটাও (মুসলিম উম্মাহর সম্পদ) মেধার অপচয় কিনা তা ভেবে দেখা প্রয়োজন!

    ইতিহাসের আবুজান্দালেরা নিজেরাই পথ তৈরী করে নেয়- তবে সবাই আবুজান্দাল হতে পারেনা!

    Reply
  3. এম এন হাসান
    এম এন হাসান at |

    “ইশরাক” ই প্রথম নয়, তার আগেও এরকম বহু জজবা ওয়ালা কর্মি ঝড়ে গেছে,এখনো অনেকে আছে সন্দেহ নিয়ে এবং ভবিষ্যতেও আসবে। এই চক্র চলতেই থাকবে।

    Reply
    1. Ahamed Masum
      Ahamed Masum at |

      ভাই,একটা পুছকা ছেলে যে শিবির এর না সাথি না সদস্য ছিল,যে শিবির কে ভিতর থেকে দেখে নাই,তাকে এত importance দেওয়ার কারন কি?cs সে শিবির কে বাশ দিতে আসছে তাগুত দের proxy দিতে। যারা একসাথে পদত্যাগ করছিলেন তারা এখন শিবির এর জন্য গুম আর খুন হুছছেন।তারা কি এই আবাল থেকে কম বুঝেন?বলদ এখনও HSC পাশ করে নাই,মেডিকেল ইঞ্জেনিয়ারিং এর carrier sacrifice করেনাই,সে আসছে নলেজ দিতে,আর তাল দিতেছে হিজ্রার দল বাসায় বসে বসে,পুলিশ এর এক বারি পাছায় পরলে নলেজ বাহির হয়ে যাবে

      Reply
  4. আশরাফ আজীজ ইশরাক ফাহিম
    আশরাফ আজীজ ইশরাক ফাহিম at |

    আমি যে লেখাটি লিখেছিলাম সে লেখাটির একটি সুনির্দিষ্ট শিরোনাম ছিল।এই হেডিংটা কি পাঠকদের আকৃষ্ট করার জন্য নাকি আমার মাইন্ড রিড করে নেওয়া এটা নাকি নিছক নিজস্ব আদর্শের প্রচারের জন্য?

    জামায়াত-শিবিরকে আমি কখনোই মুনাফিক বলি নাই। আজও বলি না। ইসলামে মুনাফিক শব্দের একটি অর্থ আছে। এর অর্থ যে মুখে ঈমান এনেছে কিন্তু অন্তরে কুফর। এখানে যদি ইসলামী পরিভাষায় জামায়াত-শিবিরকে মুনাফিক বোঝানো হয় তাহলে আমার ঘোরতর আপত্তি আছে। সাধারনত মুনাফিক বলতে মানুষ ইসলামী পরিভাষায় মুনাফিককেই বোঝে।

    মুনাফিকের অনেকগুলো লক্ষন আছে। এর সবকটি লক্ষন একজন বা একটি দলের মধ্যে থাকলেও তাকে মুনাফিক বলা যাবে না। কাফির-মুসলিম বা মুসলিম-মুশরিকের পার্থক্য একজন মানুষ নির্নয় করতে পারে। কিন্তু কে মুনাফিক তা নির্ধারন করার এখতিয়ার কেবলমাত্র আল্লাহ তা’লার।

    আশা করি হেডিংটা চেঞ্জ করা হবে। এরকম হেডিং হলে হবে- ‘জামায়াত-শিবিরের ডবল স্ট্যান্ডার্ড মেন্টালিটি। একজন কর্মীর উপলব্ধি।’

    Reply
    1. এম এন হাসান
      এম এন হাসান at |

      “জামায়াত-শিবিরের মত এরকম হিপোক্র্যাট দল পৃথিবীতে আর আছে কিনা সে সম্পর্কে আমি বলতে পারব না”
      এই লাইনগুলোতো আপনার লেখাতেই আছে দেখলাম।হিপোক্র্যাট এর বাংলাইতো মুনাফিক, তাই না?
      তারপরেও এডমিনের উচিত হবে লেখকের ইচ্ছা অনুযায়ী টাইটেল পরিবর্তন করে দেয়া।

      সাথে সাথে লেখকের অনুমতির ব্যাপারটাও লক্ষ্য রাখা উচিত,যদি সেটা ঘোষিত কপি রাইটের আওতায় থাকে।
      ধন্যবাদ

      Reply
      1. আশরাফ আজীজ ইশরাক ফাহিম
        আশরাফ আজীজ ইশরাক ফাহিম at |

        হিপোক্র্যাটের বাংলা মুনাফিক কিভাবে হয় এটা ঠিক বুঝতে পারছি না। হিপোক্র্যাটের বাংলা ভন্ড। আমি দ্বৈত মানসিকতা বোঝাতেই হিপোক্র্যাট শব্দটা ইউজ করেছি। আবারও বলছি যে, মুনাফিক একটা ইসলামী পরিভাষা। এর সুনির্দিষ্ট অর্থ আছে। এটা ঈমান সম্পর্কিত। এটা নির্ধারন করার ক্ষমতা আমাদের নাই। আমরা কুফর-শিরক আলাদা করতে পারে। কিন্তু নিফাক অন্তরের বিষয় এবং একমাত্র আল্লাহই অন্তর্যামী।

        Reply
  5. md khant
    md khant at |

    আসলে এ ব্লগের উদ্দেশ্য হয়তো জামায়াত শিবিরকে সমালোচিত করা।
    .
    কিন্তু এ ব্লগে আমাদের বাস্তব কিছু সমস্যা ফুটে উঠেছে যা আমাদের শুধরে নিতে সুবিধা হবে সেজন্য আমরা আপনাদের সাধুবাদ জানাই।
    .
    তবে আপনি এ দুটি দলের চেয়ে ভালো কোন দল ইন্ডিকেট করুন যা এর চেয়ে ভালো।অথবা আপনি নতুন কোন দল তৈরী করুন যাতে ইসলামের সকল বৈশিষ্ট্যই থাকবে।এ কথা দ্বারা আমি এটা বলছিনা যে দল করতেই হবে।বরং আমার উদ্দেশ্য হলো ইসলামকে রাস্ট্রীয় পর্যায়ে নেওয়া।আর তা করতে হলে এ দেশে অবশ্যই রাজনিতী করতে হবে।
    *
    একজন মুসলমান হিসেবে আপনাকে জামায়াত বা শিবির করা ফরজ নয় কিন্তু ইসলামকে রাস্ট্র পর্যায়ে নেওয়া ফরজ।আর তাই আপনাকে রাজনিতী করতে হবে।এক্ষেত্রে কোন দলটি উত্তম তা দেখিয়ে দিলে উপকৃত হবো।

    Reply
  6. mohammad abdur rauf
    mohammad abdur rauf at |

    লেখকের লেখা পড়ে মনে হলো,মনে কোন কষট নিয়ে লিখেছেন,তাই বলে এভাবে ঢালাও ভাবে দোষারোপ করা ঠিক নয়,আমি মনে করি ছাত্র জীবনে যে সময় সংগঠনকে দিয়েছি, তার চেয়ে হাজার বেশী সংগঠন আমাকে দিয়েছে।

    Reply
  7. muminrakib
    muminrakib at |

    ভাল লেখা লিখতে পারলেই ভাল অনলাইন এক্টিভিস্ট হওয়া যায় না।
    আপনার মত কিছু পিচ্চি পোলাপানের পোস্ট পড়তে খুব মজা লাগে।
    অত্যন্ত বিনোদনের সহিত আপনার পোস্ট পড়ি। ভাল্লাগে। আরো বেশি বেশি পোস্ট দেন সেই কামনাই করি।

    Reply

Leave a Reply