3 Responses

  1. ABUSAIF
    ABUSAIF at |

    (প্রাসংগিক হওয়াতে অন্য পোস্টে আমার মন্তব্যটাও এখানে শুরুতে দিলাম)
    *** আসসালাম… সংগঠনের বাইরে থেকে সংস্কারের কথা বলছি- ওটা করতে গিয়ে কেউ সফল হয়েছেন এমনটা চোখে পড়েনা! বরং জ্বর সারাতে কুইনাইন খেয়ে এখন কুইনাইন সারানোর চিন্তায় অস্থির, কেউ তো সেটাও বাদ দিয়েছেন, আরো বেশী বৈপরীত্যের সাথে আপোষ করে আন্দোলনের মাঠে থাকতে হচ্ছে- এর চেয়ে তো জামায়াত-শিবিরে থেকেই অনেক বেশী রিফর্ম করতে পারতেন, যেমন কোন কোন শিবির নেতা এখন রিফর্ম করার চাবিটা হাতের নাগালে পেয়ে গেছেন!
    তাই আমি মনে করি, কষ্ট যতই হোক, রিফর্ম করার কাজটা বেরিয়ে গিয়ে করার চেয়ে ভেতরে থেকেই করাটা অনেক কম কঠিন! অ-নে-কেই সেটা করছেন বলে জানি/দেখি, শত আঘাত সয়েও তাঁরা বেরিয়ে যাননি- কারণ প্রাণপ্রিয় আদর্শের এ সংগঠন(গুলো)কে সেবা করেই সুস্থ্য করে তোলা সম্ভব- ত্যাগ করে নয়!

    মুখলিস মানুষের মুক্তচিন্তা ও কল্যানপ্রচেষ্টা কখনো বিফলে যায়না- কিন্তু অনুসৃত পন্থায় যদি ভুল হয় তবে সুফল আসেনা- নেকনিয়্যতের জাযআ তো আল্লাহতায়ালার কাছে, মানুষ ওটা জানেওনা- তাই গোণেওনা- দৃশ্যমান কর্ম দিয়েই বিচার করা হয়!
    ****
    বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা বা অক্ষমতার পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তি-পাল্টাযুক্তি ও উদাহরণ অনেক! কিন্তু একটা ধ্রুবসত্য কখনো ভুলে গেলে চলবেনা যে, নির্ভুল ও দোষমুক্ত মানুষ/সংগঠন এ পৃথিবীতে একটাও নেই- এর মাঝে তারাই উত্তম যারা নিজেদের ভুল ও দুর্বলতা-অক্ষমতা স্বীকার করে ও সংশোধনের চেষ্টা করে, যদিও পূরোপুরি সংশোধন অসম্ভব!

    “””কিন্তু এই সিস্টেমের বেড়াজালে নিজেকে বেঁধে ফেলব না।”””
    কোন না কোন “”” সিস্টেমের বেড়াজালে “”” আবদ্ধ থাকাটা ব্যক্তির নিজের নিরাপত্তার জন্যই জরুরী- এ কথাটা ভুলে যাওয়া অনেক বড় ক্ষতির কারণ হতে পারে!
    এ কথাও মনে রাখা ভালো যে- (আল্লাহতায়ালা না করুন) আপনার নিজের মন-মগজের উপর আপনার নিয়ন্ত্রণ কার্যকর না-ও থাকতে পারে! তেমন অবস্থায় নিয়মের বেড়াজালই আপনার রক্ষাকবচ হতে পারতো- যা আপনি নিজেই ছিন্ন করেছেন!

    Reply
    1. ABUSAIF
      ABUSAIF at |

      **আরেকটি কথা- শুধু স্মরণ করানোঃ মাওলানা মওদূদী রাহঃএর হেদায়াত বইটিতে আপনার সমস্যাগুলো আলোচিত হয়েছে- সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ মুক্তমনে ওটা কয়েকবার পড়ে নিন- বিশ্বাস করি আপনি ওটা আগেও অনেকবার পড়েছেন, এখন “”মুক্তমানুষ”” হিসেবে আবারও পড়ুন! ঐ বইটি আপনার মুক্তচিন্তা ও কাজের সহায়ক হবে মনে করি!

      Reply
  2. Mazhar
    Mazhar at |

    প্রিয় ফাহিম
    আমি ছেড়েছি অনেক আগে, যখন তুমি হাইস্কুলেও যাওনি। তবে অভিমান করে নয়, ব্যাক্তিগত দুর্বলতার কারনে। তবে আমার থেকে তোমার কষ্টটা বেশী কারন তোমার ত্যাগ কুরবানীও বেশি।
    ১. কোচিং নিয়ে তোমার অভিযোগটা আমি না দেখেই বিশ্বাস করেছি। জামায়াত-শিবিরের কিছু সরলপ্রান লোক সত উদ্দেশ্যে জামায়াতের ট্যাগ ব্যবহার করে ফান্ড রেইজ করে। কিন্তু ব্যাবসায়িক জ্ঞানবুদ্ধি না থাকার কারনে ব্যাবসায় লস করে। সে আর রিকভার করতে পারে না। এভাবে অনেকেই নিজের নির্বুদ্ধিতার ধরুন দলকে কলঙ্কিত করেছে।
    ২. সম্ভবত তুমি আমার লেখা পড়েছও মন্তব্যো করেছ। সেটা থেকে আমার মানসিকতা কিছুটা আছ করতে পারবে। এই সংখ্যাটাও বাড়ছে। কথা বলার চেয়ে যার যার অবস্থা থেকে কাজ করা দরকার।
    ৩. আমি তোমার সাথে একমত স্কুল লেভেলে কাউকে শপথ পাঠ না করানো।
    ৪. নিচের লিঙ্কটি পড়লে তোমার অনেক প্রশ্নের জবাব পেতে পার।
    http://www.bdmonitor.net/newsdetail/detail/34/102790

    Reply

Leave a Reply