মধ্যপ্রাচ্যের নতুন মানচিত্র

মধ্যপ্রাচ্যে আজ রক্তের হুলি খেলা, কোথাও যেন একটু স্বস্তি নেই। আর এর মূল কারন হল বৃহৎ মধ্যপ্রাচ্য প্রকল্পের আলোকে মধ্যপ্রাচ্যের নতুন মানচিত্র।সোভিয়েত রাশিয়ার (USSR) পতনের পর ব্রিটেনের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মারগারেট থাচারকে যখন প্রশ্ন করা হয়েছিল NATO ত গঠন করা হয়েছিল সোভিয়েত ইউনিয়নের বিরুদ্ধে আজ ত সোভিয়েত ইউনিয়ন নাই তাহলে NATO র প্রয়োজনীয়তা কি? তখন তিনি উত্তরে বলেছিলেন শ্ত্রু বিহীণ কোন আদর্শ টিকে হতে পারে না। রাশিয়ার কম্যুনিজমের পতন হয়েছে তাই বলে আমাদের শত্রু বিহীণ থাকলে চলবে না। আজ থেকে আমাদের শত্রু ইসলাম। এরপর NATO র পতাকার লাল রঙকে পরিবর্তন করে সবুজ করা হয়। আমেরিকা ইউরোপীয় ইউনিয়ন সমস্ত শক্তি নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে ইসলামের উপর । মধ্যপ্রাচ্যর তেল অস্রকে হস্তগত করার জন্য সমগ্র মধ্যপ্রাচ্যে তাঁর সামরিক ঘাঁটি স্থাপন করে। ইসরাইলের জন্য হুমকি সরুপ কোন রাষ্ট্র যাতে দাঁড়াতে না পারে এই জন্য একে একে সমস্ত দেশগুলাকে ধংস করে দেয়।তাদের অবস্থান পাকাপোক্ত করার পরই মধ্যপ্রাচ্যের জন্য নতুন মানচিত্র অংকন করে। আর এটাকে বাস্তবায়নের জন্য এবং মুসলমানদেরকে আরও বিভাজিত করার জন্য আজ মধ্যপ্রাচ্যকে মৃত্যু পূরীতে পরিণত করেছে।
আসুন জেনে নেই কে কি বলেছিলেন, আজকের মধ্যপ্রাচ্য নিয়ে

* জর্জ ডাব্লিউ বুশ BBC তে প্রকাশিত একটি ডকুমেন্টারিতে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সাথে দেখা করে এই কথা গুলু বলেছিলেন ‘’সৃষ্টিকর্তার পক্ষ (GOD) থেকে দায়িত্ব পেয়েছি । আর এই জন্যই ইরাক এবং আফগানিস্তানে হামলা করেছি। আমরা আপনাদের মুসলমানদের জন্য ‘’নবমতম ক্রুসেড’’ শুরু করেছি।‘’
* যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কন্ডোলিজা রাইস Washington post পত্রিকায় এক সাক্ষাতকারে বলেছিলেন ‘’তুরস্কসহ মরক্কো থেকে পারস্য উপসাগর পর্যন্ত মধ্যপ্রাচ্যের ২২ টি দেশের মানচিত্র পরিবর্তন করব।‘’
* ডিক চেনী (DİCK CHENEY) আমেরিকান ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকা কালে অ্যামেরিকান ইন্সিটিউট কর্তৃক আয়োজিত এক সম্মেলনে বলেছিলেন ‘’প্রেসিডেন্ট বুশের ক্রুসেড শব্দকে আমরা সমর্থন করি। আমরা যদি ইরাক এবং আফগানিস্তানে হামলা না করতাম তাহলে তারা ইসলামী ঐক্য প্রতিষ্ঠা করে ইসরাইলকে মানচিত্র থেকে মুছে ফেলত।‘’

bop202[1]

Leave a Reply