একটি মন্তব্যের উপর মন্তব্য

আমার আগের লেখার প্রেক্ষিতে একজন ভাই একটি মন্তব্য করেছেন, তাঁর মন্তব্যের জবাবে আমার জবাব ছিল নিম্নরুপ। অন্য পাঠকদের সেীজেন্যে মুল পোস্টের মত করে পোস্ট করে দিলাম।

জেদ্দাবাসী লিখেছেন : বস, রেজা ভাইকে নিয়ে আপনার আগের লেখাটাও পড়ে মনে হল আপনি নিরপেক্ষতা বজায় রাখতে পারেননি। রেজা সাহেবের পক্ষেই কলম ধরেছেন মনে হয়েছে। যাক, যে কোন পক্ষে বিপক্ষে বা নিরপেক্ষ লিখার আপনার স্বাধিনতাকে সম্মান জানাচ্ছি। এই ধরনের বির্তকে জামায়াত-শিবিরের ক্ষতির চাইতে লাভ বেশি হবে বলে মনে করি। রেজা ভাইয়ের লেখাটা পড়ে মনে হয়েছে ওনি শব্দ চয়েনে আরো একটু সাবধান হতে পারতেন । এক জাগায় তিনি লিখেছেন “আগে আমাদের শুরু ছিল রাসুলে করীম (স) থেকে, মধ্যখানে লম্ফ দিয়ে সোজা মওলানা মওদুদী” এই ভাষাটা অপরিপক্ষই নয় বরং এর ভিতর তাঁর ক্ষোভ ঝরে পড়েছে। মওলানা মওদুদী সাহেব তো সব সময় চেষ্টা করেছেন রাসুলে করীম সা. ও কোরআনের দিকে মানুষকে পিরিয়ে আনতে।

ধন্যবাদ

ধন্যবাদ ভা্ই জেদ্দাবাসী,

তবে আপনি আমাকে বস বলছেন কোন সুত্রে বুঝলাম না। আমি জীবেনে কোনদিন বস ছিলাম না। হবার ইচ্ছাও নাই। হ্যাঁ, আপনার কথা দুটোই সত্য। আমি যে তাঁর পক্ষ নিয়েছি এটাও সত্য। আসলে আমার কষ্ট লেগেছে। আমি লম্বা ইতিহাস লিখতে পারবো, আমার বাবা আমাকে সেটা শিখিয়েছেন, কেউ আক্রান্ত হলে তার পক্ষ নেয়া। তবে আপনার দ্বিতীয় কথার সাথেও আমি একমত। ফরিদ ভা্ই ভাষা ব্যাবহারের ক্ষেত্রে আরেকটু সচেতন হতে পারতেন। এবং সত্যি বলতে কি কোথাও কোথাও আমাও একটু খারাপ লেগেছে। এজন্য আমি প্রথমেই মন্তব্য করেছিলাম যে, তাঁর প্রথম দুটি লেখা পড়ে আমিও একটু থমকে দাঁড়ালাম, ভাবলাম এ লেখাগুলো কি আসলেই দরকার। তবু আমি তাঁর পক্ষ নেয়ার কারণ প্রথমত কিছু কিছু ভাষা আমাকে কষ্ট দিয়েছে। আমি নিজেও কোন কোন ক্ষেত্রে এমনতর ব্যাবহারের শিকার হয়েছি। আগেই বলছি আমি আপনার সাথে একমত, ফরিদ ভাই, ভাষার ক্ষেত্রে আরেকটু সচেতন হতে পারতেন। তবে, আরেকটা বিষয় আমি যোগ করতে চাই। ভাই আপনি সম্ভবত সেীদি আরব থাকেন, আমরা যারা পাশ্চাত্যে থাকি কিছু দেশীয় সংস্কৃতি আমরা ভুলে গেছি। এদেশে আমরা আমরা আমাদের প্রফেসরদেরকে নাম ধরে ডাকি। কোম্পানী একেবারে বড় বসকে নাম ধরে ডাকি। আমরা কি সাহাবায়ে কেরামের নামের আগে মুহতারাম ব্যাবহার করি। সাহাবাদের নামের আগে পিছে আমরা কোন লক্কবই লাগাই না।

আমি জানি, ফরিদ ভাই বাংলাদেশে বড় হওয়া। তিনি বাংলাদেশী সংস্কৃতিকে শ্রদ্ধা করলে ভাল হতো, কমপক্ষে ভুল বুঝাবুঝি হয়তো আরো কম হতো। আমি এখনো মনে করি বেচারা ফরিদ ভাই, কাউকে আক্রমন করার জন্য কথাগুলো বলেন নি। তবু ও তাঁর ভুল হতে পারে। তবে আমি জেনে বুঝে তাঁর পক্ষ নিয়েছি। কোন মাস্তানিকে আমি কোনদিন প্রশ্রয় দিই না। আপনার যথাযথ মন্তব্যের জন্য আবারো ধন্যবাদ্

Leave a Reply