“জুমার খুৎবায় পুলিশ, ওলামা মাশায়েখের বৈঠক, পীস টিভি বন্ধের সুপারিশ”

stইমাম আবু হানিফা রহঃ তৎকালীন শাসকের কথা মত না চলায় তাকে কারাবরণ করতে হয়। তবুও তিনি ইসলামের বিষয়ে তাদের সাথে কম্প্রোমাইজ করেন নি।

আর এমন আলেমদের সম্পর্কেই মহান আল্লাহ তায়া’লা পবিত্র কোরআনে সুরা ফাতিরের ২৮ নং আয়াতে বলেছেনঃ ” আল্লাহর বান্দাদের মধ্যে জ্ঞানীরাই (আলেমরা) কেবল তাঁকে ভয় করে।”

নবী কারীম সাঃ এমন আলেমদের সম্পর্কেই বলেছেন- আলেমগণ নবীদের উত্তরাধিকার।

আর আমাদের দেশের তথাকথিত ওলামা মাশায়েখ, ওলামালীগ, দরবারী আলেম, শাহবাগী আলেম, সরকারী সুবিধা আদায়ে হক গোপন কারী ও শাসক গোষ্ঠীর প্রশংসাকারী ভণ্ড আলেমরা আওয়ামিলীগের প্রকাশ্য এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী পুলিশ প্রধানের সাথে বৈঠক করে ঢাকার মসজীদ সমুহে জুমার খুৎবায় পুলিশের গোয়েন্দা কর্মকর্তা নিয়োগের ও পীস টিভি বন্ধের সুপারিশ করেছে।

আলেমদের দায়িত্ব যেখানে সবার আগে হক কথা বলা, সত্যের আদেশ ও অসত্যের নির্দেশ বাস্তবায়নে সক্রিয় ভুমিকা পালন করার কথা সেখানে তারা মসজীদে মসজীদে জুমার খুৎবায় পুলিশ নিয়োগের সুপারিশ করে মূলত তারা তাদের প্রকৃত পরিচয় উন্মোচন করলো, সাথে সাথে তারা এও জানান দিলো যে ইসলাম বিরোধীতা কারীদের সাথে তাদের গাঁয়ের পোশাক, মাথার টুপি আর মুখের দাঁড়ি ছাড়া আর কোন তফাৎ নেই।

ভারতের স্টার জলসা, জী টিভি, স্টার প্লাস প্রভৃতি চ্যানেল যখন আমাদের তরুণ প্রজন্মের চরিত্র বিনষ্টকারী প্রোগ্রাম নিয়ে সারা বাংলাদেশের ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে তখন কি কেউ এইসব আলেমদের দেখেছেন প্রতিবাদ করতে?

অথচ ঈমান, ইসলাম ও সৎ-চরিত্র তৈরি করে এমন প্রোগ্রাম নিয়ে যখন জনপ্রিয় পীস টিভি তাদের প্রোগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে তখন এই ভণ্ড দরবারী আলেমরা এটি বন্ধে সক্রিয় ভুমিকা পালন করে যাচ্ছে।

এর আগে অবৈধ এই সরকার দিগন্ত, ইসলামিক ও একুশে টি ভি বন্ধ করে দিয়েছে।

আর এমন আলেমদের সম্পর্কে হাদীসের ঘোষণা- এইসব আলেমরাই আদালতে আখেরাতে সবার আগে ধরা খেয়ে যাবে।

Leave a Reply